রবিবার - কলকাতা



জয়ের শহর কলকাতায় “ সম্রাট এণ্ড কোং”

Written by Ratan Mondal, Posted on 2014-04-16,05:20:44 p

Samrat and Co,Inox Movies

কলকাতা, ১৫ ই এপ্রিল, ২০১৪: রাজীব খাণ্ডেলোয়াল তাঁর আসন্ন ছবি “ সম্রাট এণ্ড কোং” নিয়ে জয়ের শহর কলকাতায়। এটি একটি রহস্য রোমাঞ্চকর কাহিনী। দুষ্ট দমন থেকে মানুষের প্রকৃতি পরিবর্তন সহ বড়পর্দায় আসন্ন একটি পুরো চিত্তবিনোদন মূলক সিনেমা।

সাঊথ সিটি মলে,Inoxএ অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে এই ছবির প্রচারে তিনি বলেন, “ আমরা কলকাতায় আসতে পেরে খুব আনন্দিত, আরও বেশি আনন্দিত আমাদের অনুরাগিদের মধ্যে আসতে পেরে।আমরা এখানে আমাদের আসন্ন ছবি সম্রাট এণ্ড কোং এর প্রচারে এসেছি, আশা রাখি ২৫ শে এপ্রিলে আসা এই ছবিটি সবাই দেখবেন এবং ভালবাসবেন।”

মুলত ভারতীয় যুব সমাজের দর্শকদের জন্য এটি একটি সুন্দর রহস্য গল্প। ছবির শুরুতেই দেখা যাবে রাজীব খান্দেলওয়াল রাগান্বিত যুবকের বেশে বসে আছেন চেয়ারে, আর বললাম না, বাকিটা না হয় দেখার উৎসাহে থাকুক। সম্রাটের ভুমিকায় খান্দেলওয়ালকে দেখা যাবে সম্পূর্ণ নতুন ঢঙে।

মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করা খান্দেলওয়াল বলেন, “ আমি চেয়েছি এই সিনেমাটা পথ ভাঙ্গার হোক, যেটা দর্শকের কাছে নতুন বার্তা পৌঁছে দেবে। অনেকে বলেছেন আমি নাকি সত্য পথে কঠোর ভাবে আছি। এতাই আমার কাছে অনেক বড় পাওয়া। আমি ৫০ বা ১০০ কোটির ছবি করতে চাইনি। চেয়েছি কিছু জিনিস কেন্দ্রীভূত করতে।”

সারমর্মঃ ধনী পরিবারের সুন্দরী যুবতী মেয়ে দিম্পি সিং( মাদালসা শর্মা) একটি অদ্ভুত কেস নিয়ে আসে গুপ্ত অনুসন্ধানকারী সম্রাট তিলকধারীর (রাজীব) কাছে। একটি অজানা প্রাকৃতিক কারনে তাদের বাগান নষ্ট হয়ে গেছে, বিশেষজ্ঞরা পতিত গাছেদের নিয়ে পরীক্ষা করা সত্বেও কিছু সম্ভাব্য কারন বলতে পারেন নি। এমনকি তার বাবার প্রিয় ঘোড়াটিও মারা গেছে। দিম্পির বাবা মহেন্দ্র প্রতাপ সিং এমনিতে খুব ভারসাম্য পূর্ণ শক্তপোক্ত মানুষ তারও শরীর ভেঙ্গে পরেছে, এমত অবস্থায় সম্রাটের শরণাপন্ন হওয়া।

সম্রাট তার সহকারি বন্ধু চক্রধর পাণ্ডে( গোপাল দত্ত)কে মহেন্দ্রের বিশাল ভূমিতে সন্ধানে আসে... এই ভাবেই গল্পের সুত্রপাত।

এরপর আসল ঘটনা কি? কে আসল দশি?কিভাবে হল অনুসন্ধান? শেষপর্যন্ত কি হল??...এই সব কিছু জানতে অপেক্ষা করতে হবে ২৫ তারিখ পর্যন্ত। 



আমাদের উপপদ এর সরঞ্জাম গুলি

আপনার মন্তব্য



শেষ পাওয়া এই বিভাগের খবর

জনপ্রিয় খবর গুলি