বুধবার - কলকাতা



ফিল্ম রিভিউ: রাঞ্ঝানা-একটি মিষ্টি ব্যর্থ প্রেমের গল্প

Written by Sayantan Halder, Posted on 2013-06-25,11:54:47 p

Critics Rating :
User Ratings :
Your Rating :

ranjhana, dhanush in ranjhana, ranjhana film review, ranjhana film review in bengali, ranjhana love story, ranjhana box office, sonam kapoor in ranjhana, abhoy deol in ranjhana, ranjhana a secrifice love,ranjhaana

রাঞ্ঝানা একটি প্রেমের গল্প, থুরি ব্যর্থ প্রেমের গল্প। যে গল্পে চার চারটি সত্যিকরের ভালোবাসা শেষে সংজ্ঞাহীন হয়ে যায়। সিনেমাটি দেখতে দেখতে লায়লা-মজনু, হীর-রাঞ্ঝা কাহানী র কথা মনে পরে। একদম ছোটো বেলায় মানে স্কুল লাইফে, এক হীন্দু ঘরের ছেলে এক মুসলমান ঘরের মেয়ে কে ভালোবেসে ফেলে। ভালোবাসা পেতে পেতে হারায় কুন্দন (ধানুষ), কারন যোয়া (সোনাম)র ঘরে বেপারটা জানা জানি হয়ে গেলে তাকে দিল্লি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সেখানে তার আলাপ হয় ছাত্র দল নেতা অভয় দেওল এর সাথে। আবার একটি সত্যি করের ভালোবাসা তৈরী হয় একে অপরের প্রতি। ১০ বছর পর বেনারসে ফিরে আসে যোয়া, কুন্দন তখনও তাকে ভালোবাসে। ভালোবাসার জন্য সে সব কিছু করতে পাড়ে, তাই ভালোবাসা যখন অন্য কারোর ভালোবাসা পেতে চাইলো, তখনও কুন্দন সেই অন্য ভালোবাসা পাইয়ে দেওয়ার জন্য মরিয়া। ভালোবাসার জন্য ভালোবাসা কে ভুলে গেল সে, এ এক অদ্ভুদ পরিস্থিতি, আর এর পর ই গল্পে আসল মোচর টা আসে, উঠে আসে কিছু বাস্তবতা। আসে ধর্মের গোরামী, যার ফলস্বরুপ বলি তে চরেন অভয় দেওয়াল। জয় হয় ধর্মের, তারপরেই আসে রাজনীতি। যোয়া, তার হারানো ভালোবাসার স্বপ্ন কে এগিয়ে নিয়ে যেতে গঠন করে রাজনৈতিক দল, ঘটনা চক্রে ওই দলে জরিয়ে পড়ে কুন্দনও। রাজনীতি, ভালোবাসা, ব্যর্থ প্রেম, এই তিন এরই বলি তে চরে কুন্দন ও। জীবনের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত সে ভালোবাসার জন্য অপেক্ষা করেছিল, কিন্তু যোয়া তাকে ভালোবেসেও ভালবাসতে পারেনী তখনও, এরকমই ছিল সিনেমার গল্প টা। একটি এক্কেবারে মিষ্টি, অন্যরকমের ব্যর্থ প্রেমের গল্প। হয়তো একটু জটিল, পরিচালক আনন্দ রাই ধর্মের গোরামী, আর রাজনীতির কুটকচালী কে ঠিক মতো তুলে ধরতে গিয়ে সিনেমাটি কে একটু জটিল বানিয়ে ফেলেছেন। কুন্দন এর চরিত্রে ধনুষ গল্প অনুযায়ী বেশ মানিয়ে গেছে, সোনাম কাপুর ও যথাযথ। অভিনয়ে সবাই স্বাভাবিক এবং স্বচ্ছল, অভয় দেওয়লের কথা আলাদা করে নাই বা বোললাম, উনি বড় ভালো। সঙ্গীতে এ আর রহমান এর ও তুলো না নেই, ঠিক যায়গায় ঠিক ঠিক টাচ টা দিয়ে গেছেন। তাই আমি সায়ন্তন হালদার, এক বার নয় বার বার দেখার মতন খুবই টাচি প্রেমের গল্প রাঞ্ঝানা কে ৫ এ ৩.৫ নাম্বার দিলাম।



আমাদের উপপদ এর সরঞ্জাম গুলি

আপনার মন্তব্য