মঙ্গলবার - কলকাতা



সার জমিন শান্তি

Written by Sourav Mitra, Posted on 2014-10-12,05:35:11 p

Give Peace a Chance,Nobel Peace 2014,Malala,Youngest Nobel Laureate,Kailash Satyarthi

গত প্রায় ৬ দশকেরও বেশী সময় ধরে সীমান্ত বিষয়ক দ্বন্দ্বে যুযুধান দুই দেশের দুই যোদ্ধা কে স্বীকৃতি দিল নোবেল কমিটি। পাকিস্তানের প্রতিবাদী সাহসী মেয়ে মালালার সাথে যুগ্ম বিজয়ী হিসেবে নোবেল শান্তি প্রাপক হিসেবে বিবেচিত হলেন কৈলাস সত্যার্থী। মালালার কাহিনী কম বেশী আমরা সবাই জানি, তবে তুলনায় অল্পশ্রুত আমাদের স্বদেশীয় কৈলাসের সংগ্রাম। 

১৯৮০ থেকে নিজের শিক্ষকতার চাকুরী জীবন ছেড়ে দুস্থঃ শিশুদের জন্য কল্যাণকর কাজে নিজেকে নিয়োজিত করেছেন। তাদের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, শিশুদের পাচার হয়ে যাওয়া, শিশুশ্রম প্রভৃতি রোধে তাঁর কাজের স্বীকৃতি আজকের নোবেল শান্তি পুরষ্কার। ১৯৮০ থেকে তাঁর এই উদ্যোগ যা আজ 'বচপন বাঁচাও আন্দোলন' নাম নিয়ে এক বিশাল আকার ধারণ করেছে এবং তা শুধু এ দেশেরই নয়, সারা দক্ষিণ এশিয়ার শিশুদের সামগ্রিক দুর্দশা নিরসনে তিনি আজও অক্লান্ত।

এরই সাথে আমাদের অকুণ্ঠ অভিনন্দন আমাদের পড়শি দেশের অসমসাহসী মেয়ে মালালা, যার সাহসে কুর্নিশ জানিয়ে নোবেল তাদের ৯৯ বছরের নজির ভাঙল। ১৯১৫ সালে ২৫ বছর বয়সে ফিজিক্সে নোবেল পেয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার লরেন্স ব্র্যাগ। তার পর এই ১৭ বছর বয়সী কিশোরী মালালা। তবে মালালার এই খ্যাতি বা সম্মান নিয়ে তার দেশে মিশ্র প্রতিক্রিয়া, কেউ কেউ একে পশ্চিমী দেশ গুলির পাকিস্তানকে সারা পৃথিবীর সামনে ঘৃণ্য এক দেশ হিসেবে তুলে ধরার কারসাজি, মৌলবাদীরা আবার মালালাকে ইসলামের শ্ত্রু হিসেবে বর্ণিত করেছেন। এসবের মাঝে বিতর্ক উড়িয়ে দিয়ে নরওয়ের নাগরিক ও নোবেল জুরিদের একজন ফ্রেডরিক হেফেরমাহ্‌ল্‌ বলেছেন, 'এই পুরষ্কার তাঁদের জন্য নয় যাঁরা কাজ করেছেন এবং এই স্বীকৃতির জন্য উন্মুখ হয়ে আছেন সারা জীবন। এই সমস্ত বিতর্ক ভিত্তিহীন। নোবেল শান্তি পুরষ্কারের উদ্দেশ্য হল বিশ্ব শান্তিকে প্রোমোট করা ও তার রক্ষকদের সম্মান জানানো।'

এসবের মাঝে একটা বিষয় নিয়ে আমাদের মাথা ঘামাতেই হবে। কাশ্মীর নিয়ে দুই দেশ যখন বিবদমান, সীমান্তে পাকিস্তানের বারবার অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন ও ভারতের পালটা জবাব এসবের মাঝে নরওয়ের নোবেল কমিটির এই সিদ্ধান্ত কী উপমহাদেশের দুই শক্তিধর দেশের কূটনীতিকদের কোনও বার্তা দিতে চাইল? 



আমাদের উপপদ এর সরঞ্জাম গুলি

আপনার মন্তব্য



শেষ পাওয়া এই বিভাগের খবর

জনপ্রিয় খবর গুলি