মঙ্গলবার - কলকাতা



সমালোচনাঃ বাড়ি তার বাংলা

Written by Sayantan Halder, Posted on 2014-05-18,01:57:03 a

Critics Rating :
User Ratings :
Your Rating :

Baari Tar Bangla,Baari Tar Bangla Movie Review,Film Review Baari Tar Bangla,Baari Tar Bangla 2014,Baari Tar Bangla Bengali FIlm,Baari Tar Bangla by Saswata and Raima Sen,Bengali FIlm Review,Bengali Recent Movie Review

সাস্বত, রাইমা সেন অভিনীত "বাড়ি তার বাংলা" একটি মজার সিনেমা, থুরি এক ব্যঙ্গাত্বক মজার সিনেমা, ব্যঙ্গর ছলে বলে যাওয়া একটি গল্প। গল্পের প্রধান বিষয় মাতৃ-ভাষা, যেখানে মা এবং ভাষা বাংলা দুটিই আছে। ছোটো বেলা থেকেই কবিতা বানানোর প্রতিভা ছিল রুপচাঁদ (স্বাশতর চরিত্রের নাম) এর মধ্যে। থুড়ি কুৎসিত কবিতা লেখার প্রতিভা। তাই খুব সহজেই একটি বিজ্ঞাপন তৈরীর কোম্পানিতে কাজ ও পেয়ে গেছিল রূপচাঁদ। তার মায়ের বড় আশা ছিল ছেলেকে ঘিরে, আর এক এক করে রূপচাঁদ তার মায়ের আশা সব পুরন করতে থাকে। রূপচাঁদের বাবা রাজনীতি করেন লাল রঙের হয়ে। কিন্তু যখন রূপচাঁদ চাকরি থেকে ছাটাই হল তখনই তার মা সেই আঘাতটা না নিতে পেরে আত্মহত্যা করে। রাজ্যে রাজনীতির হাওয়া বদলানোর সাথে সাথে বাবাকেও হারায় রূপচাঁদ। যদিও বাবার থেকে অনেক আগেই দূরে চলে গিয়েছিল রূপচাঁদ। কুৎসিত কবিতা লিখে উপার্যন করাটা কখনই, ওর বাবা মেনে নিতে পারেনি কিনা। যাইহোক, রূপচাঁদ প্রথমে, বিজ্ঞাপনী লাইন লিখলেও, পরে খুচরো বিয়ের কার্ড, অন্নপ্রাশনের জন্য ছড়া লিখতেন, তারপর রাজনীতিতে প্রথমে বাবার দলে তারপর হলুদ দলের জন্য। কিন্তু তারপর থেকে আর কেউ কাজে ডাকেনি, আর যখন থেকে তার কাজ ফুরোলো আর লিখতে পারতোনা রূপচাঁদ। তাই সে মানসিক ডাক্তারের কাছে যায় কারন খুজে বার করার জন্য। এবং তারপরই আসে প্রেম। এই হল মোটের উপর গল্প। 
পরিচালক রঙ্গন চ্যাটার্জী দর্শক দের হাসিয়ে গেছেন এবং হাসির ছলে একটু চেটেও নিয়েছেন বাংলা রাজনীতি কে। সিনেমার শুরুতে নিছকই বলা রয়েছে "সব ঘটনা কাল্পনিক, কোনো চরিত্রের সাথে বাস্তবের যোগ কাকতালীয়"। কিন্তু গল্পটি দেখলে যে কেউ বলে দিতে পারবে এই তো এটি অমুক রাজনৈতিক দল, কোনো কাকাতালীয় নয়। যাই হোক সব মিলিয়ে রঙ্গন চক্রবর্তীর হিউমর শুধু হাসিই নয়, বেশ কিছু বাস্তবতাকে টোকা মেরে যায়। জানিনা কুৎসিত কবিতা গুলো কি করে উনি বানালেন তবে হলের ভিতরে বেশ হাত তালি পড়েছিল ওই কবিতা গুলি শুনে। 
সাস্বতর অভিনয়ের তো তুলনা নেই, রাইমা সেন ও ভালো, তবে অভিনয়ে সেরম কিছু দেখানোর ছিল না।
যাই হোক মোট এর উপরে আমি সায়ন্তন হালদার এই সিনেমা কে ৫ এ ৩.৫ নাম্বার দিলাম। 

 



আমাদের উপপদ এর সরঞ্জাম গুলি

আপনার মন্তব্য



শেষ পাওয়া এই বিভাগের খবর

জনপ্রিয় খবর গুলি